দু’চোখ খোলা বৃষ্টি ঘরে – বিপ্লব শীল

ভাঙছি মাকড়শার জাল পুরোনো বুকের ভেতরে। কপাল গড়িয়ে বিকাল নেমেছে দেখো মনের পারে। থাকব না, থাকব না আর রাত বাড়িয়ে কাঁদব না, কাঁদব না আর তোমায় এড়িয়ে দু’চোখ খোলা বৃষ্টি ঘরে ভাঙছি মাকড়শার জাল পৃথিবী ঘোরে তোমার ভরে পড়েছি ইতিহাসে, নিরক্ষরেখায় একলা তোমায় খুঁজছি অঙ্ক ক’ষে। মুখের ’পরে শব্দ না ...

Read More »

বৈপরীত্য – বিপ্লব শীল

কুঁড়ির বৃন্তে জ’মে ছিল শীত, তাই ফুলের পাপড়ি মেলে এল বসন্ত; ব্যথার পাশে শুয়ে ছিল রাত, আমার মা কে ছাড়া ঘুম না আসা পর্যন্ত। দিন তোমাকে যে ছেলেটা এখনও দেখতে পায়নি কোথাও রোদসীর রোদ্দুরে, তুমিই যার আঠালো দু’চোখ ফুটিয়ে ছিলে নিষ্ঠুর পাথারে; রাত কে তো সে কখনও অন্ধকারে দেখে না ...

Read More »

দুঃখ – উত্তম চক্রবর্তী

বড় স্যারের বকা খেয়ে দুঃখ পেল অধস্তন, গোমড়া মুখে বসে আছে ডেস্কে গিয়ে অনেকক্ষণ। অফিস কলিগ বলল তাকে মন খারাপের কিছু নেই, বড় স্যারের বকা তোমার পূর্ণতা যে দিবে ভাই। অধস্তন ও বুঝল মানে শিরোধার্য বকা সেই, উন্নতি তাই করতে হলে মানতে হবে বড়কেই। কর্মজীবন সুখী হবে ধৈর্য্য ধরে থাকে ...

Read More »

বিপ্লব আসছে – বিপ্লব শীল

ঘরের ভিতরে ফুলের বাগান; ঘরের বাইরে মরুভূমি। কত দিন আর চলবে এভাবে ? বিপ্লব আসছে তাই আটলান্টিকা থেকে। পুকুরের জল সুমিংপুলে, ঘুমিয়ে আছে নদী। চাতক পাখি স্বিন্ন শরীরের পচাগলা ডোবায় বৃষ্টি নামায় যদি ! বিপ্লব আসছে তাই সাগর পেরিয়ে দেখি। শীতের চাদর হারিয়ে গেছে যদিও, তেতে আছে খুব রৌদ্র; জ্বর ...

Read More »

কাব্য রচিবো – এ.আই রানা চৌধুরী

আজ কাব্য রচিবো আমি, মনের সব আবেগ ঢেলে দিবো তাতে। যে ভাবনাগুলো দিনরাত অন্তরে ঘুরপাক করে তাই দিয়ে আজ কাব্য রচিবো। প্রথম প্রেমের সেই স্মৃতি নিয়ে পশুর রক্তে লেখা চিঠি দিয়ে তোমাকে প্রেম নিবেদন করার কাহিনীকে আমার কবিতায় ঠাই দিবো। গোধুলী লগ্নে তোমার এলোকেশে আঙ্গুলি করার কথাকে ছন্দ বানিয়ে রোমাঞ্চকর ...

Read More »

বাবা সুখে থাক!

ছেলেটা বলল তুমি সাদাসিধে, ফিটফাটে কেন তবে অসুবিধে! অনেক করেছ সংসারের তরে, নিজেকে বিলিয়ে দিয়ে উপকারে। এবার তোমাকে দেখবো তোমাতে, তবে কিছু করো একান্ত নিজেতে। জীবনের কষ্টে দাও কিছু সুখ, নিজেকে করোনা শুধু যে বিমুখ। এটাই চাওয়া ছেলের একান্ত, বাবা সুখে থাক এ ভবে অনন্ত। বিধাতাকে স্মরি- বাবা মোর স্বপ্ন, ...

Read More »

বৈপরীত্য

বৈপরীত্য An anti-system of the universe কুঁড়ির বৃন্তে জ’মে ছিল শীত, তাই ফুলের পাপড়ি মেলে এল বসন্ত; ব্যথার পাশে শুয়ে ছিল রাত, আমার মা কে ছাড়া ঘুম না আসা পর্যন্ত। দিন তোমাকে যে ছেলেটা এখনও দেখতে পায়নি কোথাও রোদসীর রোদ্দুরে, তুমিই যার আঠালো দু’চোখ ফুটিয়ে ছিলে নিষ্ঠুর পাথারে; রাত কে ...

Read More »

তৃষ্ণার সীমানা/মাহামুদুল হাসান

তুমিতো আমাকে পড়নি কখনো কোনদিন দেখনি ভেতটা ঘুরে কত সাদা ফুলের মতো রঙ্গিন শুধু সংসার পাতলে কি এ জিবন মেটাবে সমুদ্রের ঋণ হবে কি আকাশ ও নীলিমা জানা অথবা বালুচরের বুকে গুপ্ত পথের ঠিকানা তোমাকে জানাতে পাখির ড়ানার কাছে পুড়ছে হৃদয় বিশ্বাসে তৃষ্ণার সীমানা

Read More »

দাম্ভিকতা

তুমি দাম্ভিক তাই বলে কী আমি ও দাম্ভিক হবো, আমি হয়তো ভালোবাসার বাঁধনে বেঁধেই যাবো। ছুঁয়ে যাবো তোমার দম্ভের হৃদয়কে যত্ন করে, কোমল স্পর্শের অনুভূতি দোলা দিবে মন ভরে। জানি আমি যার অভাবের পীড়নে নির্দয় ভবে, হৃদয়ের উষ্ণতায় তুমি কোমলতা ফিরে পাবে। অন্তরের গভীর প্রেমই অহংকার দূর করে, আজ তাই ...

Read More »

তুল্যতা – উত্তম চক্রবর্তী

কিছু স্বাধীন সত্তা প্রকৃতিতে আপন মনে ঘুরে বেড়াই খুশিতে; জানিনা এদের দুঃখকষ্ট আছে কিনা কতো মজা এদের দেখতে! ছেলেটি জানালার পাশের ফুলগাছে স্বচ্ছন্দ পাখিকে দেখে বলে; আহা তুমি কতো নিরাপদ বাঁধাহীন মনের আনন্দে ডালে ডালে… ভালো-তো লাগেনা সারাদিন পড়ালেখা স্থিরীকৃত ছকে অবরুদ্ধ; যদি মুক্ত পাখি হতে পারতাম তবে চলতাম আজ ...

Read More »

ভালোবাসার খেলাঘর – অনির্বাণ

যে হারিয়ে যায় তাকে খুঁজে পাওয়া যায় , কিন্তুু যে বদলে যায় , তাকে কি পাওয়া যায়? বিশ্বাস এক ভয়ানক জিনিষ .. যাকে দেখাও যায় না ,আবার ছোঁয়াও যায় না।। তবে এটা হারালে সবকিছুই হারিয়ে যায়।। জানিনা কতোটা ভালোবাসি তোমায় , তবে প্রতিটা মূহূর্তে … অনেক টা মিস করি।। কেনো ...

Read More »

অপূর্ণতা

আনন্দঘন দিনগুলো স্বল্পকালের জন্য স্থায়ী হয়, কেন যেন দ্রুত ফুরিয়ে যায় সুখের এই যে সময়! আনন্দকে ভাগ করতে গিয়ে মানুষ হারিয়ে ও যাচ্ছে, কে জানতো জীবনের শেষ যাত্রা তাকে এভাবে ডাকছে! পরিবার নিয়ে সুখের সেলফি কার না পছন্দ হয়! তাই বলে মৃতুরই মতো গন্তব্যের স্বাদ কেন দেয়? বাঁচা মরা নিয়ন্তার ...

Read More »