ভয় করিয়ো না, হে মানবাত্মা – কাজী নজরুল ইসলাম

তখ্‌তে তখ্‌তে দুনিয়ায় আজি কমবখ্‌তের মেলা,

শক্তি-মাতাল দৈত্যেরা সেথা করে মাতলামি খেলা।

ভয় করিয়ো না,​​ হে মানবাত্মা,​​ ভাঙিয়া পোড়ো না দুখে,

পাতালের এই মাতাল রবে না আর পৃথিবীর বুকে।

তখ্‌তে তাহার কালি পড়িয়াছে অবিচারে আর পাপে,

তলোয়ারে তার মরিচা ধরেছে নির্যাতিতের শাপে।

ঘন গৈরিকে আকাশ রাঙায়ে বৈশাখী ঝড় আসে,

ভাবে লোভান্ধ মানব,​​ তাহার গোধূলি-লগন হাসে!

যে আগুন ছড়ায়েছে এ বিশ্বে,​​ তারই দাহ ফিরে এসে

ভীম দাবানল-রূপে জ্বলিতেছে তাহাদেরই দেশে দেশে।

 ​​​​ 

সত্যপথের তীর্থ-পথিক! ভয় নাই,​​ নাহি ভয়,

শান্তি যাদের লক্ষ্য,​​ তাদের নাই নাই পরাজয়!

অশান্তিকামী ছলনার রূপে জয় পায় মাঝে মাঝে,

অবশেষে চিরলাঞ্ছিত হয় অপমানে আর লাজে!

পথের ঊর্ধ্বে ওঠে ঝোড়ো বায়ে পথের আবর্জনা,

তাই বলে তারা ঊর্ধ্বে উঠেছে – কেহ কভু ভাবিয়ো না!

ঊর্ধ্বে যাদের গতি,​​ তাহাদেরই পথে হয় ওরা বাধা,

পিচ্ছিল করে পথ,​​ তাই বলে জয়ী হয় নাকো কাদা!

 ​​​​ 

জয়ে পরাজয়ে সমান শান্ত রহিব আমরা সবে,

জয়ী যদি হই,​​ এক আল্লার মহিমার জয় হবে!

লাঞ্ছিত হলে বাঞ্ছিত হব পরলোকে আল্লার,

রণভূমে যদি হত হই মোরা হব চির-প্রিয় তাঁর!

হয়তো কখনও জয়ী হবে ওরা,​​ হটিব না মোরা তবু,

বুঝিব মোদের পরীক্ষা করে মোদের পরম প্রভু!

 ​​​​ 

বিদ্বেষ লয়ে ডাকিলে কি প্রভু পথভ্রান্ত ফিরে?

ভালোবাসা দিয়ে তাদেরে ডাকিতে হয় বক্ষের নীড়ে।

সজ্ঞানে যারা করে নিপীড়ন,​​ মানুষের অধিকার

কেড়ে নিতে চায়,​​ তাহাদেরই তরে আল্লার তলোয়ার।

অজ্ঞান যারা ভুল পথে চলে,​​ মারিয়ো না তাহাদেরে,

ভালোবাসা পেলে ভ্রান্ত মানুষ সত্যের পথে ফেরে।

সকল জাতির সকল মানুষে এক তাঁর নামে ডাকো,

বুকে রাখো তাঁর ভক্তি ও প্রেম,​​ হাতে তলোয়ার রাখো।

সর্ববিশ্ব প্রসন্ন হয় তিনি প্রসন্ন হলে,

সত্যপথের সর্বশত্রু ছাই হয়ে যায় জ্বলে!

আমাদেরও মাঝে যার বুকে আছে লুকাইয়া প্রলোভন,

তারেও কঠিন সাজা দিতে হবে,​​ আল্লার প্রয়োজন!

 ​​​​ 

আগে চলো,​​ আগে চলো দুর্জয় নব অভিযান-সেনা,

আমাদের গতি-প্রবাহ কাহারও কোনো বাধা মানিবে না।

বিশ্বাস আর ধৈর্য হউক আমাদের চির-সাথি,

নিত্য জ্বলিবে আমাদের পথে সূর্য চাঁদের বাতি।

 ​​ ​​​​ ভয় নাহি,​​ নাহি ভয়!

 ​​ ​​​​ মিথ্যা হইবে ক্ষয়!

 ​​ ​​​​ সত্য লভিবে জয়!

ভক্তে দেখায় রক্তচক্ষু যারা,​​ তারা হবে লয়!

বলো,​​ এ পৃথিবী মানুষের,​​ ইহা কাহারও তখ্‌ত্ নয়!

 ​​​​ 

পুণ্য তখ্‌তে বসিয়া যে করে তখ্‌তের অসম্মান,

রাজার রাজা যে,​​ তাঁর হুকুমেই যায় তার গর্দান!

ভিস্তিওয়ালার রাজত্ব,​​ ভাই,​​ হয়ে এল ওই শেষ,

বিশ্বের যিনি সম্রাট তাঁরই হইবে সর্বদেশ!

রক্তচক্ষু রক্ষ যক্ষ,​​ সাবধান! সাবধান!

ভুল বুঝাইয়া,​​ বুঝেছ ভুলাবে আল্লার ফরমান?

এক আল্লারে ভয় করি মোরা,​​ কারেও করি না ভয়,

মোদের পথের দিশারি এক সে সর্বশক্তিময়।

সাক্ষী থাকিবে আকাশ,​​ পৃথিবী,​​ রবি শশী গ্রহ তারা,

কাহারা সত্যপথের পথিক,​​ পথভ্রষ্ট কারা!

 ​​ ​​​​ ভয় নাহি,​​ নাহি ভয়!

 ​​ ​​​​ মিথ্যা হইবে ক্ষয়!

 ​​ ​​​​ সত্য লভিবে জয়!

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।