বাধ্যতা – কল্লোল সোম

1
2

দাবানল বাবদ এযাবৎ লোকপ্রজ্ঞা :
হয় তাকে খাল-নালা-ঘটি-বাটি-পাড়াপড়শি সহ
পুরোদস্তুর আক্রমণ,
নতুবা দেওমন্তর ঝেড়ে তাকে বেহেড্‌ করে দেওয়া –
ঘর-খামার, মাগ-ভাতার, প্যাঁচ-পয়জার,
গীতা-কোরাণকে রেহাই দিয়ে,
খাক্‌ করে চলে যেতে পারে সে যেন
শুধু মাইল’কে-মাইল অলীক সাভানা
যা তুমি বুয়েছিলে লোকচোখের আড়ালে,
নীলকাজল পাহাড়ের পায়ের কাছে বসে
কালো মেঘের পর্দা টেনে;
যা পুড়ে গেলে আগামী বসন্ত বয়কট করবে না
পরাগ প্রচারক
কোনো মিশনারী ভ্রমর।

আমি দ্বিতীয় পন্থার দিকে, বাধ্যতঃ ,
দস্তখত্‌ করিয়ে নিয়েছো তুমি সেই কবে
( দিনক্ষণ ধূসর এখন )
আমাকে দিয়ে,
অনাক্রমন চুক্তি ।