ক্রমশঃ // মল্লিকা রায়

0
45

অতন্দ্র প্রহরীর মতো জেগে থাকে
কাম, ক্রোধ,লোভ অনতিক্রম্য জায়গিরে
কয়েক’শো প্রবণতা;

দুর্নিবার গতিকে ফেলে পাল্টে নিমেষে
রাতকে দিন,দিনকে রাত ;আবর্তন বিবর্তন ;
ফুটপাত, দুখীর নিরাময়, বিষয়ের আর্তনাদ
বেমালুম ফসিল হয়ে যায় মুহূর্তে;
চিরন্তন মাধ্যকর্ষণে ভেসে যায় গন্তব্য
অপ্রতিরোধ্য চাহিদার কাছে;

সে বলে ; চাল-চুলো ;ফাঁটা ঘর ; চুরি যাওয়া সিন্দুক ;
বন্ধকী কাগজের ছাপ ? ক;ফোটা অশ্রু আছে
চুল্লির কাছে অার চ্যালাকাঠ্ ;

ছিনিয়ে নেয় স্বভাবের শাসন বারণ সেটুকুও ,
নাভিশ্বাস ঘটা বেয়ে তর তর্ ;
বেড়ে যায় লেলিহান দুরুহ প্রশ্বাস
যাকে বলি দুরাচার ;

নিষিদ্ধ ঘরে পরে থাকে কোলাহল ,
মগজের সমাজ আয়নায় কিছু মাত্র নিন্দা মন্দে
আমাদের অন্তিম সমাচার ।

মল্লিকা রায়
আমি মল্লিকা রায় ,উঃ ২৪ পরগণা জেলায় বারাসাত শহরের বাসিন্দা, ছোটবেলা থেকে নিছক আবেগের বশে লেখায় প্রবেশ। পাশে পড়াশুনা,জীবন-যাপন ও বিভিন্ন খ্যাতিমান কবি,সাহিত্যিকদের লেখায় আত্মনিবেদন।দীর্ঘকাল ধরে কিছু ছোট পত্র-পত্রিকায় সৌজন্যমূলক লেখায় আত্ম-প্রকাশ। পারিবারিক প্রেরণার উৎস মা, যার একাংশ জুড়ে আমার তার প্রতি প্রবল আকূতি রয়েছে, বিশেষত লেখার মূল সূত্র বিভিন্ন সামাজিক প্রেক্ষাপটে মানুষের নানান প্রভেদ-বিভেদ, ঘাত-প্রতিঘাত প্রভৃতি আমায় লেখণী তুলতে উদ্বুদ্ধ করেছে। বাংলা কবিতা আসরে প্রবেশ প্রায় ২০১৫ তে, এডমিন এবং অজস্র সহযোগী বন্ধুর সহযোগিতায় এ পর্য়ন্ত পৌঁছানো।