অসহায় জীবন –

1
75

অসহায় জীবন
– রামপ্রসাদ (হলুদ ঘাস )
নিশুতি রাতে,জনশূন্য পথে,
একাকী পথ চলা !
কাতর, কাঁপা, নিঃসঙ্গ এক
কুকুর ছানার দেখা।।

অবিরত হাঁকডাক,বাঁচবার চিৎকার,
গভীর শীতের রাতে।
বুক ধড়ফড়, কুয়াশায় ভরা,
অবুঝ হৃদয় কাঁপে।।

জাপটে ঘাড়ে,ঝোঁপের ধারে
জঞ্জাল দিল ফেলে,
ভুল কি ছিল পৃথিবী দেখা?
জীবন হেসে বলে?

ধীরে ধীরে আসল কাছে,
পেতে চায় একটু ঠাঁই।
গায়ে ছিল মাখা, কালো রঙে ঢাকা,
খড় পোড়া ছাই।

যাচাইয়ের সাথে,কুকুর ছানা
সমাজের জাতি ভাবনা,
রাখলাম তারে পথের পাশে
মাদী কুকুর ছানা-য়!

দ্রুতবেগে পথচলা,আপন মনে কথা বলা,
ওঃ বাঁচলাম কোন মতে!
ঘরে ফিরে দেখি, দেখলাম একি?
অতিথি আমার দাঁড়িয়ে।

অনেক আশা,চোখের ভাষায়,
বোঝাল লেজটি নাড়িয়ে।
সাথে সাথে পথচলা,আনন্দে মাতোয়ারা,
হৃদয়টা দিল ভরায়ে।

রাখলাম ডাকনাম,ডাকলেই হীরা,
নিমিষে পা ধরে জড়ায়ে,
নেই আপত্তি, উচ্ছিষ্টে ও খুশি,
ফেলে আসা,অবশিষ্ট আহারে।

ভুল কি ছিল এই পৃথিবী দেখা,
নিষ্পাপ মাদি কুকুর ছানায়?
প্রচলিত আজও, মানব সমাজে
ভাবায় শিশু কন্যায়।

সভ্য সমাজের,কি আজব মহিমা,
কন্যা সন্তানই,আমাদের মা।
আসুক ধারণা, জাগুক চেতনা
মাই আমার শিশুকন্যা !