ভৈরবী একতালা

এই দেহেরই রংমহলায়
খেলিছেন লীলা-বিহারী।
মিথ্যা মায়া নয় এ কায়া
কায়ায় হেরি ছায়া তাঁরই॥
রূপের রসিক রূপে রূপে
খেলে বেড়ায় চুপে চুপে,
মনের বনে বাজায় বাঁশি
মন-উদাসী বনচারী॥
তার খেলাঘর তোর এ দেহ,
সে তো নহে অন্য কেহ,
সে যে রে তুই, – তবু মোহ
ঘুচল না তোর হায় পূজারি॥
খুঁজিস তারে ঠাকুর-পূজায়,
উপাসনায় নামাজ রোজায়,
চালকলা আর শিন্নি দিয়ে
ধরবি তারে, হায় শিকারি!
পালিয়ে বেড়ায় মন-আঙিনায়
সে যে শিশু প্রেম-ভিখারি॥

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।