Advertisements
Home / Tag Archives: বিরহের কবিতা

Tag Archives: বিরহের কবিতা

বিরহ – বিক্রম ঘোষ

যতটুকু ভালোবাসা রেখেছি বাকি, যদি পারো অবশেষে ফিরিয়ে দিয়ো আমায়। শেষ নক্ষত্রের রাত। শব্দশূন্য আঁধার আসে কোন তারা নেই, জেগে থাকবে অনন্ত আকাশে কিছু তারা বাঁচে আমার মতো করে, আঁধারে। হয়তো তুমি আছো বলে এক শতাব্দী দূরে Advertisements

Read More »

আক্রোশ – নির্মলেন্দু গুণ

আকাশের তারা ছিঁড়ে ফেলি আক্রোশে, বিরহের মুখে স্বপ্নকে করি জয়ী; পরশমথিত ফেলে আসা দিনগুলি ভুলে গেলে এতো দ্রুতো,হে ছলনাময়ী? পোড়াতে পোড়াতে চৌচির চিতা নদী চন্দনবনে আগ্নির মতো জ্বলে, ভূকম্পনের শিখরে তোমার মুখ হঠাৎ স্মৃতির পরশনে গেছে গলে ।

Read More »

ব্যস্ততা – তসলিমা নাসরিন

তোমাকে বিশ্বাস করেছিলাম, যা কিছু নিজের ছিল দিয়েছিলাম, যা কিছুই অর্জন-উপার্জন ! এখন দেখ না ভিখিরির মতো কেমন বসে থাকি ! কেউ ফিরে তাকায় না। তোমার কেন সময় হবে তাকাবার ! কত রকম কাজ তোমার !

Read More »

চৈতী হাওয়া – কাজী নজরুল ইসলাম

হারিয়ে গেছ অন্ধকারে-পাইনি খুঁজে আর, আজ্‌কে তোমার আমার মাঝে সপ্ত পারাবার! আজ্‌কে তোমার জন্মদিন- স্মরণ-বেলায় নিদ্রাহীন হাত্‌ড়ে ফিরি হারিয়ে-যাওয়ার অকূল অন্ধকার! এই -সে হেথাই হারিয়ে গেছে কুড়িয়ে-পাওয়া হার!

Read More »

বিদায়-বেলায় – কাজী নজরুল ইসলাম

তুমি অমন ক’রে গো বারে বারে জল-ছল-ছল চোখে চেয়ো না, জল-ছল-ছল চোখে চেয়ো না। ঐ কাতর কন্ঠে থেকে থেকে শুধু বিদায়ের গান গেয়ো না, শুধু বিদায়ের গান গেয়ো না।।

Read More »

একা – বীথি চট্টোপাধ্যায়

আমার চোখে বসন্ত দারুণ চৈত্রমাস চতুর্দিকে শিমূল-পলাশ কৃষ্ণচূড়ার ত্রাস। ঝড় উঠেছে নিখুঁত কালো বৃষ্টি ভেজা রাত আঁচল দিয়ে দুঃখ ঢাকি কোথায় তোমার হাত ?

Read More »

তোমাকে ভুলতে চেয়ে আরো বেশী ভালোবেসে ফেলি – মহাদেব সাহা

তোমাকে ভুলতে চেয়ে আরো বেশি ভালোবেসে ফেলি তোমাকে ছাড়াতে গিয়ে আরো বেশি গভীরে জড়াই, যতোই তোমাকে ছেড়ে যেতে চাই দূরে ততোই তোমার হাতে বন্দি হয়ে পড়ি, তোমাকে এড়াতে গেলে এভাবেই আষ্টেপৃষ্ঠে বাঁধা পড়ে যাই

Read More »

যে আমাকে প্রেম শেখালো – মাকিদ হায়দার

যে আমাকে প্রেম শেখালো জোৎস্না রাতে ফুলের বনে সে যেন আজ সুখেই থাকে সে যেন আজ রানীর মত ব্যক্তিগত রাজ্যপাটে পা ছড়িয়ে সবার কাছে বসতে পারে

Read More »

নীল – সৃজা ঘোষ

জ্বরের মত সুন্দর উষ্ণতা চাই। রুঘ্ন ঠোঁটের ভেতর ভেতর ক্লান্ত তবু, চুম্বনে অরুচি নেই… দুদিন হল স্নানহীন। আদরে গা ভেজাও,

Read More »

জন্মোত্তর – সৃজা ঘোষ

জন্মের পরে জন্ম ভাঙছে, দিনেরা জমেছে ঋণে- ভালোবেসে কারা লাল হয়ে গেছে নিষিদ্ধ আলপিনে… অভিলাষ নয়, অভ্যেসে তাই- আরবার ফেরে পাখি, বোবা বাক্সতে কান্না জমাই, ফাঁকা হাতে হাত রাখি।

Read More »

প্রতীক্ষালয় – ইন্দ্রজিৎ দত্ত

দেরীতে ঘুম ভাঙা সকালের চাদরটা ধীরে সুস্থে সরিয়ে ফেলতেই জানলা পেরোনো চোখ দুটো আকাশে। কুচি কুচি মেঘ। প্রথম সঙ্গমের মত একে অপরের গায়ে উঠে পড়তে চাইছে। ছুঁয়ে দিচ্ছে অকারণ ব্যস্ততা। যেমন বস্তির শিশিবোতলওয়ালা প্রতিদিনের পকেট থেকে কিছুটা সরিয়ে রাখে সঞ্চয়। তড়িঘড়ি। যদি আর সূযোগ না আসে। যদি আর না পাওয়া ...

Read More »

নক্সী কাঁথার মাঠ – জসীমউদ্দিন

নক্সী কাঁথার মাঠ – এক বন্ধুর বাড়ি আমার বাড়ি মধ্যে ক্ষীর নদী, উইড়া যাওয়ার সাধ ছিল, পাঙ্খা দেয় নাই বিধি | — রাখালী গান এই এক গাঁও, ওই এক গাঁও — মধ্যে ধু ধু মাঠ, ধান কাউনের লিখন লিখি করছে নিতুই পাঠ | এ-গাঁও যেন ফাঁকা ফাঁকা, হেথায় হোথায় গাছ ...

Read More »

কবর – জসীমউদ্দীন

এই খানে তোর দাদির কবর ডালিম-গাছের তলে, তিরিশ বছর ভিজায়ে রেখেছি দুই নয়নের জলে। এতটুকু তারে ঘরে এনেছিনু সোনার মতন মুখ, পুতুলের বিয়ে ভেঙে গেল বলে কেঁদে ভাসাইত বুক। এখানে ওখানে ঘুরিয়া ফিরিতে ভেবে হইতাম সারা, সারা বাড়ি ভরি এত সোনা মোর ছড়াইয়া দিল কারা! সোনালি ঊষার সোনামুখ তার আমার ...

Read More »

প্রেম – শুভ দাশগুপ্ত

৪ঠা অক্টোবর তাদের দুজনের প্রথম দেখা হল। তখন বিকেল ঘনিয়ে আসছে। বাতাসে শীতের আমেজ। ১০ই অক্টোবর তাদের দীর্ঘক্ষণ কথা হল টেলিফোনে। সেদিন ছেলেটি নতুন কেনা টব’এ গোলাপের চারা লাগাল। ৩০শে অক্টোবর রেস্টুরেন্টের নিরালা কেবিনে ছেলেটি বলল—

Read More »

সেই কবে থেকে – হুমায়ুন আজাদ

সেই কবে থেকে জ্বলছি জ্ব’লে জ্ব’লে নিভে গেছি ব’লে তুমি দেখতে পাও নি । সেই কবে থেকে দাঁড়িয়ে রয়েছি দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে বাতিস্তম্ভের মতো ভেঙে পড়েছি ব’লে তুমি লক্ষ্য করো নি ।

Read More »

ইচ্ছে ছিলো – হেলাল হাফিজ

ইচ্ছে ছিলো তোমাকে সম্রাজ্ঞী করে সাম্রাজ্য বাড়াবো ইচ্ছে ছিলো তোমাকেই সুখের পতাকা করে শান্তির কপোত করে হৃদয়ে উড়াবো। ইচ্ছে ছিলো সুনিপূণ মেকআপ-ম্যানের মতো সূর্যালোকে কেবল সাজাবো তিমিরের সারাবেলা পৌরুষের প্রেম দিয়ে তোমাকে বাজাবো, আহা তুমুল বাজাবো।

Read More »

প্রস্থান – হেলাল হাফিজ

এখন তুমি কোথায় আছো কেমন আছো, পত্র দিয়ো৷ এক বিকেলে মেলায় কেনা খামখেয়ালী তাল পাখাটা খুব নিশীথে তোমার হাতে কেমন আছে, পত্র দিয়ো৷ ক্যালেন্ডারের কোন পাতাটা আমার মতো খুব ব্যথিত ডাগর চোখে তাকিয়ে থাকে তোমার দিকে, পত্র দিয়ো৷ কোন কথাটা অষ্টপ্রহর কেবল বাজে মনের কানে কোন স্মৃতিটা উস্কানি দেয় ভাসতে ...

Read More »