Home / Tag Archives: প্রতিবাদের কবিতা

Tag Archives: প্রতিবাদের কবিতা

সাম্যবাদী – কাজী নজরুল ইসলাম

গাহি সাম্যের গান- যেখানে আসিয়া এক হয়ে গেছে সব বাধা-ব্যবধান যেখানে মিশছে হিন্দু-বৌদ্ধ-মুস্‌লিম-ক্রীশ্চান। গাহি সাম্যের গান! কে তুমি?- পার্সী? জৈন? ইহুদী? সাঁওতাল, ভীল, গারো? কন্‌ফুসিয়াস্‌? চার্বআখ চেলা? ব’লে যাও, বলো আরো! বন্ধু, যা-খুশি হও,

Read More »

মশাল – রুদ্র গোস্বামী

কন্যা সন্তান প্রসব করার অপরাধে আসামের যে মেয়েটাকে পুড়িয়ে মারা হয়েছিল ? আজ তার মৃত্যু বার্ষিকী। যে কবি সেদিন তার নিরানব্বইতম কবিতাটি মেয়েটাকে উৎসর্গ করেছিলেন, তিনি এখন তার প্রিয় পাঠিকার অনুরোধে লিখছেন বসন্ত গল্প।

Read More »

আরামের মেয়ে – জয়া গুহ (তিস্তা)

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে জাপানী সেনাদের ‘কমফর্ট’ এর জন্য লক্ষ লক্ষ কোরিয়ান মেয়েদের যৌনদাসী করে পাঠানো হয়েছিল।তাদের স্মৃতির উদ্দেশ্যে লেখা। বেহুলা সতীর ভেলায় উঠেছে লখীন্দরের লাশ সীতার চিতায় জ্বলছে আগুন পোড়েনি এখনো আশ নারী মাতা হল,কন্যা,দয়িতা নারী আরামের মেয়ে

Read More »

একটি ভ্রূণের আত্মকথা – জয়া গুহ (তিস্তা)

নারী পুরুষ ভালোবাসায় ফুলের কুঁড়ি শিশু অদেখা এই আলোর কণা ভবিষ্যতের যীশু সবেই আমি ছোট্ট কুঁড়ি সবেই তুমি ‘মা’ আগামীর সম্ভাষণে একটি মাসে পা

Read More »

সোনার মেডেল – পূর্ণেন্দু পত্রী

বাবু মশাইরা গাঁ গেরাম থেকে ধুলো মাটি ঘসটে ঘসটে আপনাদের কাছে এয়েছি। কি চাক্ চিকান শহর বানিয়েছেন গো বাবুরা। রোদ পড়লে জোছনা লাগলে মনে হয় কাল-কেউটের গাঁ থেকে খসে পড়া রুপোর তৈরী একখান লম্বা খোলস।

Read More »

ছেলেটা – শক্তি চট্টোপাধ্যায়

ছেলেটা খুব ভুল করেছে শক্ত পাথর ভেঙে মানুষ ছিলো নরম, কেটে, ছড়িয়ে দিলে পারতো । অন্ধ ছেলে, বন্ধ ছেলে, জীবন আছে জানলায় পাথর কেটে পথ বানানো , তাই হয়েছে ব্যর্থ ।

Read More »

দলিত – সুপ্রতীম সিংহ রায়

বাতাসে ভাসে উচ্চবর্ণ হাওয়া উঠোন জুড়ে সংখ্যালঘু ফুল, এক দেশে,এক সুরে গান গাওয়া “নীচ তুমি”-এটাই তোমার ভুল। ছড়িয়ে পড়ছে ধর্ম ধর্ম গন্ধ বর্ণভেদে ভাঙছে একটা সমাজ,

Read More »

গ্রেনেড – প্রদীপ বালা

পড়ন্ত বিকেলে যাদের পেচ্ছাব হলুদ হয়ে আসে আর রাত নামলে ফুটপাতে ত্রিফলার আলোয় শুয়ে শুয়ে উঁচু উঁচু ইমারতের ইট খাওয়ার স্বপ্ন দ্যাখে ওই দ্যাখো, দেখতে পাচ্ছ আকাশের গায়ে তাঁদের মুষ্টিবদ্ধ হাত হাতে হাতে সূর্যের গ্রেনেড

Read More »

মেয়েটা – মোনালিসা

ও মেয়ে, কে বলে গো নষ্ট তুমি? যারা বলে নষ্ট তুমি, তারা ঠিক তেমন- আমাদের টিয়া পাখি যেমন। আমাদের টিয়া পাখি- টুসি, কথা শেখাই তাকে যেমন খুশি।

Read More »

অ-শেষ – সৃজা ঘোষ

বিকেলের রোদে লাভ নেই খুব আর। রক্ত জমে না কাঁচা আলোটুকু পেলে, জীবন জানেনা- ‘সন্ত্রাস কবেকার?’ কতগুলো মাটি জন্ম দিত না ঢেলে… !

Read More »

মেয়েমানুষের প্রেম – সৃজা ঘোষ

১ ঝিম ধরা স্রোতে পুরুষ তোমায়, শেখাবো প্রেমের নদী- নয়া অভিঘাত শুষে নিতে হবে ‘ভালোবাসা’ নামে যদি। এ দেহ আমার ভাঁটার গল্পে গতিহারা হত যেই, কেউ বলেছিল- মেয়ে-মানুষের জোয়ার শিখতে নেই।।

Read More »

সং – সৃজা ঘোষ

এখানে প্রেম মাটির মত সোঁদা। জল-পরীদের লুকিয়ে থাকার ভয়! একটু আদর জাপটে ধরে নিলেই, ভেলভেলে-টা অন্য কারো নয়।

Read More »

আমরা – সৃজা ঘোষ

এখান থেকে মাইল খানেক, বইছে জীবন ওতপ্রত- ভেতর ভেতর সবাই একা, রক্ত সাজায় নিজের মত… ‘সহিষ্ণুতা’-য় ভয় করে যার, সভ্যতা তো তাকেই জেতায়। নষ্ট হবার বীজ পুঁতেছে শহর আমার, অন্য কেতায়

Read More »

ধর্মাবতার – সৃজা ঘোষ

এক অভ্যেসের আর বয়স কত? ধর্ষণের ও তাই বাসের ভেতর, ঘরের ভেতর নষ্ট বনে যাই। “আঠেরো চাই, আঠেরো চাই”, রডের ভেতর মেয়ে- ধর্মাবতার, মেয়েমানুষ সস্তা ‘ষোলো’-র চেয়ে…

Read More »

মুক্তিযুদ্ধের কবিতা – বুদ্ধদেব বসু

আজ রাত্রে বালিশ ফেলে দাও, মাথা রাখো পরস্পরের বাহুতে, শোনো দূরে সমুদ্রের স্বর, আর ঝাউবনে স্বপ্নের মতো নিস্বন, ঘুমিয়ে পোড়ো না, কথা ব’লেও নষ্ট কোরো না এই রাত্রি- শুধু অনুভব করো অস্তিত্ব।

Read More »

আনন্দময়ীর আগমনে – কাজী নজরুল ইসলাম

আর কতকাল থাকবি বেটী মাটির ঢেলার মূর্তি আড়াল? স্বর্গ যে আজ জয় করেছে অত্যাচারী শক্তি চাঁড়াল। দেব–শিশুদের মারছে চাবুক, বীর যুবকদের দিচ্ছে ফাঁসি, ভূ-ভারত আজ কসাইখানা, আসবি কখন সর্বনাশী?

Read More »

জনতার মুখে ফোটে বিদ্যুৎবাণী – সুকান্ত ভট্টাচার্য

কত যুগ, কত বর্ষান্তের শেষে জনতার মুখে ফোটে বিদ্যুৎবাণী; আকাশে মেঘের তাড়াহুড়ো দিকে দিকে বজ্রের কানাকানি। সহসা ঘুমের তল্লাট ছেড়ে শান্তি পালাল আজ। দিন ও রাত্রি হল অস্থির কাজ, আর শুধু কাজ!

Read More »