Home / Tag Archives: নারীবাদী কবিতা

Tag Archives: নারীবাদী কবিতা

অভিশাপ – বীথি চট্টোপাধ্যায়

স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে যেই বউকে বুকে জড়িয়ে ধরবে তখন তোমার ভীষণভাবে আমার কথাই মনে পড়বে। আমার বুকের কলহাস্য এবং নিছক বুকের স্পর্শ— আমার রূপের টুকরো টুকরো অনুষঙ্গ, হাতের নরম আঙুলগুলো তোমার চুলে খেলা করবে।

Read More »

নারীর জন্য পংক্তিমালা (২) — মাহ্ফুজ রাজন

ও মেয়ে, তুমি অমন কাঁদো কেন ? রচনা করো কেন অমন দুঃখী নিঃশব্দের কবিতা ? তোমার একেকটি কান্নার মুহূর্ত বিষন্ন করে তোলে চারধার , প্রকৃতির বেহালায় বাজে যেন দূর অতীতের কষ্টের সুর।

Read More »

নারীর জন্য পংক্তিমালা (১) — মাহফুজ রাজন

একটি নারী – হতে পারে সে স্মৃতিকণা, সীমা জোস্না অথবা অরুণিমা, কীইবা যায় আসে তাতে, নারী সে, কেবলি নারী। জল্লাদ বাহিনীর পদচারনা যার চতুর্দিক ঘিরে

Read More »

একলা চলা – জয়া গুহ (তিস্তা)

কিছু টা পথ একলা চলতে হয় ছোট্ট বেলায় এক্কা-দোক্কায় কিছু রাখা ছিল শিউলিতলায় কুলের আচার, পুতুল খেলায় তারপরে মেয়ে ছাদনা তলা- ভাতের হাঁড়ি, উনুন -কড়া আর তাছাড়া? পুকুর পাড়ে বাজছে নূপুর

Read More »

আরামের মেয়ে – জয়া গুহ (তিস্তা)

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে জাপানী সেনাদের ‘কমফর্ট’ এর জন্য লক্ষ লক্ষ কোরিয়ান মেয়েদের যৌনদাসী করে পাঠানো হয়েছিল।তাদের স্মৃতির উদ্দেশ্যে লেখা। বেহুলা সতীর ভেলায় উঠেছে লখীন্দরের লাশ সীতার চিতায় জ্বলছে আগুন পোড়েনি এখনো আশ নারী মাতা হল,কন্যা,দয়িতা নারী আরামের মেয়ে

Read More »

একটি ভ্রূণের আত্মকথা – জয়া গুহ (তিস্তা)

নারী পুরুষ ভালোবাসায় ফুলের কুঁড়ি শিশু অদেখা এই আলোর কণা ভবিষ্যতের যীশু সবেই আমি ছোট্ট কুঁড়ি সবেই তুমি ‘মা’ আগামীর সম্ভাষণে একটি মাসে পা

Read More »

মেয়েটা – মোনালিসা

ও মেয়ে, কে বলে গো নষ্ট তুমি? যারা বলে নষ্ট তুমি, তারা ঠিক তেমন- আমাদের টিয়া পাখি যেমন। আমাদের টিয়া পাখি- টুসি, কথা শেখাই তাকে যেমন খুশি।

Read More »

ধর্মাবতার – সৃজা ঘোষ

এক অভ্যেসের আর বয়স কত? ধর্ষণের ও তাই বাসের ভেতর, ঘরের ভেতর নষ্ট বনে যাই। “আঠেরো চাই, আঠেরো চাই”, রডের ভেতর মেয়ে- ধর্মাবতার, মেয়েমানুষ সস্তা ‘ষোলো’-র চেয়ে…

Read More »

হাত – তসলিমা নাসরিন

আবার আমি তোমার হাতে রাখবো বলে হাত গুছিয়ে নিয়ে জীবনখানি উজান ডিঙি বেয়ে এসেছি সেই উঠোনটিতে গভীর করে রাত দেখছ না কি চাঁদের নীচে দাঁড়িয়ে কাঁদি দুঃখবতী মেয়ে ! আঙুলগুলো কাঁপছে দেখ, হাত বাড়াবে কখন ?

Read More »

চরিত্র – তসলিমা নাসরিন

তুমি মেয়ে, তুমি খুব ভাল করে মনে রেখো তুমি যখন ঘরের চৌকাঠ ডিঙোবে লোকে তোমাকে আড়চোখে দেখবে। তুমি যখন গলি ধরে হাঁটতে থাকবে লোকে তোমার পিছু নেবে, শিস দেবে।

Read More »

কযেকটি স্বপ্ন – জারিফা জাহান

১) একটা সুন্দর হলদে সকাল | ছোট্ট টিপ,হাল্কা কাজল আর চুলটা বেঁধে বেরিয়েছি অফিস এর জন্য | বাসে প্রচন্ড ভিড় | কিনতু ভিড়ের মধ্যে কোনো কিলবিলে হাত নেই,নেই কোনো দুর্ভেদ্য নজরের কালকূট বিষ কিংবা বিকৃত কামুক মন্তব্য |

Read More »

নারী – কাজী নজরুল ইসলাম

সাম্যের গান গাই – আমার চক্ষে পুরুষ-রমনী কোনো ভেদাভেদ নাই। বিশ্বে যা-কিছু মহান্ সৃষ্টি চির-কল্যাণকর অর্ধেক তার করিয়াছে নারী, অর্ধেক তার নর। বিশ্বে যা-কিছু এল পাপ-তাপ বেদনা অশ্রুবারি অর্ধেক তার আনিয়াছে নর, অর্ধেক তার নারী।

Read More »

আমার শহরঃ একটা ককটেল ফ্যামিলি – প্রদীপ বালা

সময়ের শেষ হয় এইখানেই আবার টান টেনে টেনে লম্বা করি ধিরে ধিরে ছড়িয়ে যাক সবখানেই ### সকাল সকাল চায়ের কাপে জোর চুমুক কাল রাতের সাড়ে তিন মিনিট, চায়ের ভেতর মিষ্টি কম, বলছে কানে ফিসফিসিয়ে তুই কামুক !

Read More »

গান্ধারীকে চিঠি — প্রদীপ বালা

শ্রীচরণেষু, আমাকে আপনি চিনবেন না । হয়তো বা চিনবেন । আপনার অনেক পরে আমার জন্ম । তবু আরও দশজনের মতো আমিও আপনার কথা জানি জানি আপনার দুঃসাহসিক পতিব্রতা স্ত্রী হয়ে ওঠার কথা আপনার গুণধর ছেলেদের কথা… আরও যা যা জানা প্রয়োজন মোটামুটি সবই জানি

Read More »