নিলাম বিষয়ক

আমাদের ভালোবাসা হয়েছে আর কিছু হলে ঘর করা যায়। চাওয়া মাত্র ঋণ করে পাওয়া গেল চারিদিকের দেয়ালে বাহারি পেইন্ট করা হলো এবার কিছু আসবাব দরকার তাও কেনা হলো তার পরেও কীসের যেন অভাব অভাব পূরণ করতে সে ঘরে একটা শিশুর জন্ম হলো সুখ বিহারী এ ঘরে এতদিনে ঋণের সুদ নিজের ...

Read More »

নজরুলের প্রতি – বিভুব্রত

নজরুল বিনে আমি বিদ্রোহী শ্যামাগীতি কেমনে লিখতাম বাংলায় না জন্মালে নজরুল কোন উপায়ে শিখতাম আমার গানে গুরুচণ্ডালী কথায় আধুনিকতার ছাপ নেই হারমুনি গিটার ধরেছি, নজরুল আমার গানের বাপ। ছেলেবেলায় বাবার গানে সঙ্গত তেরেকেটে তাক শ্যামা মায়ের কোলে চড়ে- এর বড়ই কঠিন যে সোম ফাঁক বি ফ্ল্যাটে গেয়ে দেখো তুমি গঙ্গা ...

Read More »

তৃষ্ণার সীমানা

তুমি তো আমাকে পড়োনি কখনো, কোনদিন দেখনি ভেতরে ঘুরে কত হাহাকার বেদনায় লীন শুধু সংসারে মেটাবে জীবনের ঋণ? হবে কি আকাশ ও নীলিমাকে জানা অথবা চরের বুকে পাব পথের ঠিকানা? তোমাকে জানাতে পাখির ডানার কাছে পুড়ছে হৃদয় বিশ্বাসে আছে তৃষ্ণার সীমানা।

Read More »

অন্ধ জোনাকি

অন্ধ জোনাকি শুধু ভালোবাসা শামুকে প্রাচির হলে গভীর হয় না প্রেম মুখোমুখি বসে আছে তরঙ্গ সংকেত অন্ধ জোনাকির কাছে দিক্ষা নিয়েছি দু হাত নিস্তব্দতার প্রদিপ জ্বালিয়ে দিয়েছি দুরন্ত বাতাসে আঁধারে সাজাবো দৃশ্রের প্রহর যা হবার হবে যা খুশি ভাবুক লোকে, বয়স উচ্ছন্যে যত দূর যাক আজ নিষেধের বারণ উড়াব লাটাই-ঘুড়িতে ...

Read More »

তোমার ওড়নায় প্রজাপতি পড়েছিল – তরুন ইউসুফ

তোমার ওড়নায় প্রজাপতি পড়েছিল তা দেখে তুমি চিৎকার করে দুবাহু হাওয়ায় প্রসারিত করে বললে দেখলে আমিও প্রজাপতি হয়ে গেছি, সে আনন্দ খানিকটা ছড়িয়ে পড়ল তোমার যুগল কোমলে তোমার বুক এতটা হাসতে পারে জানতাম না! তোমার আনন্দ আলোয় উদ্ভাসিত তখন নগর আমরা ট্রাফিকের যে জাগটিতে দাঁড়িয়ে ছিলাম তাকিয়ে দেখি তার সামনের ...

Read More »

স্মৃতি – নীলাঞ্জন

আজ হঠাৎ করে মনে পড়লো খুব তোকে হঠাৎ করে ফিরে গেলেম পুরনো দিনেতে , সেই পোড়ো মন্দির ঘাট মন্দিরের ডান দিকের ওই বেঞ্চটা , ওটা আজও তেমনি খালি পরে আছে শুকনো পাতার ছাদরে , নিজেকে কেমন আগলে রেখেছে; আর তোর সেই প্রিয় কাগজী ফুলের গাছ, লাল সাদা আরো কত কি ...

Read More »

গাঁয়ের পথে আলোক ঝরে

গাঁয়ের পথে আলোক ঝরে লক্ষ্মণ ভাণ্ডারী গাঁয়ের পথে আলোক ঝরে প্রভাতে সূর্য উঠে, তরুর শাখে পাখিরা ডাকে বাগানে ফুল ফুটে। প্রভাত পাখি উঠলো ডাকি বট গাছের পাশে, নীল গগনে পাখনা মেলে সাদা বলাকা ভাসে। মাটির ঘরে খাটিয়া পরে আছে বসে তোতন, সকাল হলে পড়তে বসে করে না জ্বালাতন। আঙিনা মাঝে ...

Read More »

তুমি- শুভঙ্কর দাস

তুমি না থাকলে জীবনটা হত কেমন ! আমি স্বপ্নেও করতে পারি না কল্পনা। জীবনে শুধুই তুমি , সাতকুলে নেয় তো কেউ। মনে কী পরে! সেই দিনটির কথা। কলেজের নাম করে ,বাড়ি থেকে বেড়িয়েছিলে। দুজনে পালিয়ে করেছিলাম বিয়ে। যখন জানালে তুমি করেছ বিয়ে , তখন তোমার বাবা বলে ছিলেন- নেই তো ...

Read More »

‌ফেসবুক __ জুম যাহ‌রিন নাজাহ

ইন্স্ট্রগ্রা‌মে ১০০০ ফ‌লোয়ার, ‌ফেসবু‌কে হাজার দু‌য়েক, চ্যাট লি‌স্টে দুশ বা‌তি গ্রীন সিগনাল উঁ‌কি ঝু‌কি, ‌নিউজ‌ফি‌ডে লাল বেনার‌সি,তাও দশ কু‌ড়ি , ফেসবু‌কে‌তেই বি‌য়ে ব‌সে? ও‌দি‌কে বার্গার_‌পিজ্জা,পাস্তা, চি‌কেন; ডাক ফেইস বিউ‌টিরা বল‌ছে, “উইথ মাই হাবি, বে‌বি, জানু_মানু” হাউ ফা‌নি ¡ বন্ধুসংখ্যা আমার হাজার ছা‌ড়ি‌য়ে‌ছে, ‌কেউ মুখ চেনা, কেউ নাম জানা, কেউ ভীষণ ...

Read More »

কবি প্রণাম – ভোলাদা

জাইনলি প্যালা? দেখলম আজ সক্কাল বেলা গাঁয়ের মাস্টর সাইকিল চইড়ে লি আইসছে কি হাতে ধইরে! আমি শুধাই পেন্নাম মাস্টর উটা কি বটে? মাস্টর বইললো মুচকি হাইসে ইটা রবি ঠাকুর বটে। আমি বললি কুথায় পুজা? পুজা! হা হা হা হা… ক্যানে ইস্কুল ঘরে! আইসবে গো খুঁড়া সময় কইরে। তা আমি গেলি ...

Read More »

জনম জনম – ভোলাদা

জনম জনম পাই যেন মা তুমহার কোলে ঠাঁই লাল মাটিতে চির সবুজ সোনার এ বাংলায়। বাংলা হামার মা মায়ের নাইরে তুলনা… জনম জনম পাই যেন মা ডুলুং কাঁসাই শাল মহুয়া কেন্দু পলাশ সোনাঝুরির ছায় সোনার ফসল ফলে যেন হামার সবুজ গাঁয়। জনম জনম দিস মাগো গান বুকেতে ভরায় মনের কথা ...

Read More »

লাল মাটির এই দেশে – ভোলাদা

লাল মাটির এই দেশে শিমূল পলাশে শাল ফুলেরি গন্ধে মাইতে ভ্রমরা ছুইটে আসে। মহুল ফুলে বেদম নেশা জাগায় বুকে ভালোবাসা তাইতো বঁধু সকাল সাঁঝে মিটির মিটির হাসে। শিমূল পলাশ লালে লাল সোনাঝুরি উথাল পাতাল লুটায় ভুঁইয়ে শিউলি ঝইরে শিশির সবুজ ঘাসে। ডুলুং লদীর ধারে ধারে কেন্দু পিয়াল সারে সারে পাখপাখালি ...

Read More »