সুবর্ণরেখা গ্রামে একদিন

0
30

একদিন সুবর্ণরেখা গ্রামের পথে,
দৃপ্ত পায়ে পুলকিত মনে হাঁটতে হাঁটতে,
পূর্ব প্রান্তে তাকিয়ে দেখতে পেলাম,
আলতা রাঙা পায়ে হেঁটে যাচ্ছে
এক মায়াবতী ললনা।
দীঘল কালো কেশ, যার নয়ন ভরা স্বপ্ন,
বদনখানিতে লেগে আছে হাসিররেখা ।
যার মুখনিঃসৃত বাণী বকুল গাছটার নিচে দাঁড়িয়ে শ্রবণ করলাম,
শ্রুতি থেকে অতি শ্রুতিমধুর বাণী গুলো।
যা একজন পথযাত্রী শ্রবণ করলে,
শ্যেনদৃষ্টিতে বদনখানি চেয়ে দেখবে।
যা তার কাছে চির চেনা সুর হয়ে রবে,
জন্ম জন্মান্তর।
সুবর্ণরেখা গ্রামটি ছবির ন্যায় ততটা সুন্দর নয়,
যতটা সুন্দর ঐ আলতা রাঙা পায়ে ললনাটা।

যে তাকে এক বার দেখবে সে তার প্রেমে না পড়ে,
কাটাতে পারবে না একটি প্রহর।
হাজারো প্রেমিক মায়াবতী ললনার দিকে তাকিয়ে থাকবে,
ততক্ষণে কেটে যাবে দিবার দৈর্ঘ্য খানি,
তবু সেই সৌন্দর্যের ঘোর শেষ হবে না প্রেমিকের।
আমারও সেই দিনে ঠিক তেমনি হয়েছিল।

জাহাঙ্গীর আলম অপূর্ব
জন্ম ১০ জুন ২০০১ গ্রামঃ নলছিয়া উপজেলাঃ রায়গঞ্জ জেলাঃ সিরাজগঞ্জ আমি একজন শিক্ষার্থী।