রাতের ব্যবধানে

0
21

বৃটি ভেজা রাতে
গা ঝাড়ে স্বপ্ন গুলো একাকী নিস্তব্ধে কাল পেঁচার মতো
তখনো একটি একটি ফোঁটা,
পাতার টপ টপ শব্দ ঘুম ভাঙায় ভেজা প্রকৃতির ।
থমকে দাঁড়ানো সময়ও কালো আঁধার ঘেরা জঙ্গল
নব বর্ষ উদযাপনের ভেসে আশা
লাউড স্পিকারের গান বাজে ধিপ্ ধিপ্ ধিপ্…
ক্ষীণ কন্ঠে চেঁচিয়ে ওঠা বলাকা দলের
কত প্রহর হল রাত্রি জানে ।
হঠাৎ রাইস মিলের সাইরেন বেজে ওঠে
আমি বিরক্ত হয়ে কান পেতে জানালায় চেয়ে থাকি
সিক্ত অন্ধকারে,
ঠান্ডা আবহাওয়া চোখের পাতায় লাথি মারে
আলিঙ্গনের আশায় প্রতিক্ষারত ঘুম —-
মাথা টিপে দেয় তবু কিছু কবিতা লিখতে হবে
আমাকে রাত জাগাতে হবে
শুনেছি কবিরা নাকি রাতে কবিতা ধরে !
রাত্রি দুটো বাজে আমাকে কবিতা লিখতে হবে
শূন্য হাতে খুঁজি —- কবিতা এলো না তো
এখনো বহু পথ বাকি দেরি হবে, শুনি এলোমেলো
শব্দ গুলোও কথা বলে !
আমি তবু কবি হবার সেই ভেজা স্বপ্ন গুলোই
দু’চোখের পাতায় আঁকি ।

কিন্তু হায় ! এ সময়ের স্রোত জীবন নদী করে গ্রাস
হতাশায় আমি কবিতার নামে
প্রেমিকার অনুভূতি বেচতে থাকি ।।