Home / কবিতা / রকবাজি চলছে – মল্লিকা রায়

রকবাজি চলছে – মল্লিকা রায়

কাঁটা ঘায়ে নুন আর মরিচের ঝাঁঝ
হু হু বাড়ে রোসানল জমে মার-প্যাঁচ।
আইটেম গসিপের আড্ডার পাতে
বাঙালী মুন্সিয়ানা প্রখর দুনিয়া’তে।

কে কোথায় হল খুন কি দোষ কেমন
বুঁজে চোখ নির্ণেয় কষেন বিধান ।
দোষ কার কত,দায় কত পরিমাণ
চলে যাও সোজা ঐ আড্ডা সদন।

বাঁশ কার কি প্রকার চাঁছা নাকি ছোলা
কে দিয়েছে, প্রচার কি,সংবাদ ঠ্যালা।
ঘূর্ণিপাকের মই কেড়ে কবে কারা …
অট্ট হাসি ব্যঁকা চোখ কা’র মস্করা?

কার ঘর কি প্রকার মালামাল হলো
কঞ্চিতে বাঁশঝাড় প্রকার কি বলো।
দামাদামি কার বেশী কে কত’র চাল্
চোখ টিপে বলে দেয় গননার ফল।

কার দাও কত দর,জড়াবে না ছোঁবে
জানা যাবে গননার মহৎ উৎল্লাসে..।
হাসবে, বলবে কে চেঁচাবে কে বাদে
গননা জানান দেবে দ্বি-গুন আহ্লাদে।

সামনে কে,পেছনের আঁধার সারিতে
বিস্তর মিটিং চলে জোগান’টা দিতে ।
পথ চলা পাটকেল ইটের কৌশল
বাবুরা যাবেন পিছে কোন্দল-মহল ।

রসনা’র কানাকানি দলাদলি চাল্
বাঙালী অমর রহে বহে কলিকাল।
ল্যং,ঠ্যালা,মই কষো বাংলার হাল্
চলছে, চলবে বেশ্ দিব্য বহাল।

About মল্লিকা রায়

মল্লিকা রায়
আমি মল্লিকা রায় ,উঃ ২৪ পরগণা জেলায় বারাসাত শহরের বাসিন্দা, ছোটবেলা থেকে নিছক আবেগের বশে লেখায় প্রবেশ। পাশে পড়াশুনা,জীবন-যাপন ও বিভিন্ন খ্যাতিমান কবি,সাহিত্যিকদের লেখায় আত্মনিবেদন।দীর্ঘকাল ধরে কিছু ছোট পত্র-পত্রিকায় সৌজন্যমূলক লেখায় আত্ম-প্রকাশ। পারিবারিক প্রেরণার উৎস মা, যার একাংশ জুড়ে আমার তার প্রতি প্রবল আকূতি রয়েছে, বিশেষত লেখার মূল সূত্র বিভিন্ন সামাজিক প্রেক্ষাপটে মানুষের নানান প্রভেদ-বিভেদ, ঘাত-প্রতিঘাত প্রভৃতি আমায় লেখণী তুলতে উদ্বুদ্ধ করেছে। বাংলা কবিতা আসরে প্রবেশ প্রায় ২০১৫ তে, এডমিন এবং অজস্র সহযোগী বন্ধুর সহযোগিতায় এ পর্য়ন্ত পৌঁছানো।

মন্তব্য করুন