মনের আলেয়া – অনির্বাণ

7
30

কখনো ভেবে দেখেছো কি ,
যে মেয়ে টা বাপের বাড়িতে একগ্লাস জলও গড়িয়ে খেতো না ,
সে বিয়ের পর স্বামীর ঘরে সেই জলই সবাইকে খাওয়াতে ব্যাস্ত …
না না বলছি না যে , আমার গুনগান করো!
শুধুমাত্র একটু ভাবতে বলছি।।
যে মেয়ে টা ক্ষয় হয়ে যাওয়া লিপষ্টিক এর দিকে তাকিয়ে লজ্জায় লাল হতো ,
সে আজ স্বামীর ঘরে উনুনের পারে বসে হয় কালো ..
এটাও কি ভালোবাসা নয়?
না না আমি আদর করতে বলিনিতো!
শুধু ভাবতে বলছি ..

যে আদরের মেয়ে টি বাবা ফিরলে ছুটে আসতো হাত থেকে খাবার ছিনিয়ে নিতে!
সে আজ স্বামীর ঘরে বসে থাকে খাবার চেয়ে নিতে!!
আবার নাকি খিদেতে জল দিয়ে , রান্নাঘরে কান্নায় ভরতে হয় সবার খিদের জল , ভাত ও মাংসের নানান পদ।।
আমিই সেই বাবার মেয়ে আর স্বামীর ঘরে বউ…
আর স্বামীর অজান্তে শ্বাশুড়ীর বউমা ,
কিছুটা গলায় না গিলতে পাড়া কাটা।।
আর কিছুটা আদাবাটা …

যে মেয়েটি বাড়ির সবার সাথে ঝগড়া করে মশারি না টাঙিয়ে ঘুমিয়ে যেতো ,
সেই আজ স্বামীর গায়ে দুটো মশা দেখে আবার টুপ করে লাফিয়ে ওঠে …
যে মেয়েটি হাতে রিমোট নিয়ে বসে থাকতো,
সেই এখন আমি নিজেই সিরিয়াল হয়ে পড়েছি।।
যে মেয়েটি খাবারে বেশী নুন হলে,
দিতো ঢেলে জল .
সে আজও কথা শোনে ,একটু নুন খাবারে বেশী হলে!
না না যত্ন করতে তো বলিনি ,
একটু ভাবতে বলছি শুধুমাত্র …

কখনো ভেবে দেখেছ কি ,
তুমি যার পেটে জন্মেছো সেও তো মেয়েই ছিলো ঠিক আমার মা এর মতন! !

যে মেয়ে টা সপ্তাহে একদিন ফুচকা খাওয়ার বায়না ধরতো ,
বউ হওয়ায় পর সে স্বপ্ন গুলো কোথায় যেনো যায় হারিয়ে ….
আচ্ছা তোমায় কি আমি ভালোবাসিনি কখনো?
তাহলে বড়ো আবঝা লাগে কেনো?
না না ভয় পেয়ো না ,
আমি তো একটু ভাবতে বলছি.

7 মন্তব্য

  1. Wonderful, খুবই সুন্দর কবিতা ,অনবদ্য লেখনী ,
    ভাবনা গুলো খুবই বাস্তব ..
    আরো লিখুন এরাম ই চাই আমরা।।
    এই apps টি খুব ই জনপ্রিয় হক। এরাম লেখা পেলে দারুন হবে।