ভূতুরে বাংলো

0
19

ভূতুরে বাংলো
| |
#Rk_Kamrul_Hasan
^

^
আমি:-এই লগডাউনে
থাকতে থাকতে বোর
হয়ে গেছি চল কোথাও
থেকে ইকটু ঘুড়ে
আসি,কি বলিস তোরা?
তারেক:হুম আইডিয়াটা
ভালো.
রায়হান:তা কোথায়
যাবি?
আমি:আমার নানা বাড়ি
থেকে কিছু দূরে
একটা পুরানো বাংলো
বাড়ি আছে ওখান
থেকে ঘুরে আসি
রায়হান:পুরাতন বাংলো
বাড়ি ভাই তাহলে আমি
নাই
কেনো কি হয়েছে
{আমি+তারেক}
রায়হান:ভাই শুনিছি
পুরানো বাংলো
বাড়িতে নাকি ভূত
থাকে?
আমি:আরে এটা গুজব
তারেক:এই তুই এত ভয়
পাস কেন ভিতু একটা,
রায়হান:আমাকে ভিতু
বলবি না.আমি মোটেও
ভয় পাই না.
আমি:আরে তোরা
থামবি.ওই রায়হান তুই
যাবি কিনা বল?
রায়হান:ওকে আমি
যেতে রাজি
তারেক:তাহলে আমরা
বাড়িতে কি বলবো?
আমি:বাড়িতে বলবি যে
আমরা সবাই আমার
নানা বাড়িতে যাবো
ঠিক আছে {তারেক
+রায়হান}
আমি: এখন আসি. আর
বিকালে এখানে আছিস
আমি রাইচা আর
ফারিয়াকে বলে দিবো
বিকালে এখানে আসতে
ওকে
তারেক: ঠিক আছে
কামরুল বিকালে দেখা
হবে
ও আপনাদের তো আমার
পরিচয় দিতেই ভুলে
গেছি আমি কামরুল আর
এরা অমার বেস্ট ফ্রেন্ড
এই বার গল্পে ফেরা
যাক
আমি:ওকে বাই
হুম বাই {রায়হান
+তারেক}
তারপর বাড়িতে এসে
আম্মু আব্বুকে নানা
বাড়ীতে যাবার কথা
বলতে তারা রাজি হয়ে
গেছে তারাও অনেক
দিন থেকে বলছে নানা
বাড়ি থেকে ঘুড়ে
আসতে.তারপর খেয়ে
দেয়ে রাইচা আর
ফারিয়াকে কল দিয়ে
বল্লাম বিকেল ৫ টায়
আমাদের আড্ডা দেবার
যায়গায় আসতে.আর
কিছু বলি নাই আর
তার.তারপর দিলাম এক
ঘুম.তারপর হঠাৎ
মোবাইলের রিং এ ঘুম
ভাংলো
তারেক: ওই তুই কোথায়
আমি:কে আপনি {ঘুমের
ঘোড়ে}
তারেক:ওই আমি তারেক
তুই কই?
আমি:আমি ঘুমাই
তারেক:ওই তুই ঘুমাও আর
আমরা সকলে সেই কখন
থেকে ওয়েট করছি
আমি:কয়টা বাজে এখন
তারেক:০৫:১৮
আমি:কি দারা আমি ২
মিনিটে আসছি
তারেক:ওকে আয়
তারপর কল কেটে
তাড়াতাড়ি রেডি হয়ে
চলে আসলাম.এসে তো
দেখি এক একটা রেগে
লাল হয়ে আছে.
রাইচা:এই সময় হলো
আসার?
ফারিয়া:আমাদের ২০
মিনিট দারা করিয়ে
নিজে নাক ডেকে
ঘুমানো দারা দেখাচ্ছি
মজা
রাইচা:হুম ঠিক বলছো
আমাদের দার করিয়ে
রাখা এর শাস্তি ওকে
পেতে হবে
বলে দুইটায় মিলে উরা
দুরা ঘুশি মারা আরাম্ব
করছে
আমি:এই আমাকে কেউ
বাচাও দুই লেডি
আমাকে মারছে ওই
তারেক রায়হান
আমাকে বাচা
ওই এখন হইছে আর
লাগবো না এখন থাম
{রায়হান+তারেক}
তারপর দুয়টায় মারা বন্ধ
করলো
আবার যদি এই রকম
করিস তখন কিন্তু আরো
বেশী খাবি {রাইচা
+ফারিয়া}
আমি:এই কান ধরছি আর
হবে না
ফারিয়া:এখন বল
ডাকলি কেন?
রাইচা:হুম বল
তারেক:আমরা একটা
যায়গায় যাওয়ার প্লান
করছি
কোথায় {রাইচা
+ফারিয়া}
আমি:এই লগডাউনে
থাকতে থাকতে বোর
হয়ে গেছি তাই আমারা
ভাবছি আমার নানা
বাড়ি যাবো আর
সেখানে একটা পুরানো
বাংলো বাড়ি আছে
সেটাও ঘুড়ে আসবো
তোরা যাবি?
যাবো না আবার {রাইচ
+ফারিয়া}
রায়হান:তা কবে যাবি
আমি:কাল সকালে নানু
বাড়ি যাবো ওখান
থেকে বিকালে
বাংলো বাড়িতে যাবো
ঠিক আছে {সবাই}
আমি:তাহলে সবাই কাল
সকাল ১০ টায় সব
জিনিস পত্র নিয়ে
এখানে চলে আশিস
ওকে {সবাই}
তাহলে এখন আমার আসি
{রাইচা+ফারিয়া}
আমি:আচ্ছা যা
,
তাহলে চল আমরাও উঠি
আবার সব কিছু গুছ গাচ
করতে {রায়হান
+তারেক}
আমি:ওকে
তারপর ওখান থেকে
এসে কাপড় চোপর গুছ
গাচ করে দিলাম এক ঘুম
…তারপর সকালে ঘুম
থেকে উঠে নাস্তা করে
কাপুড় চুপুর ব্যাগে নিয়ে
বড়িয়ে পড়লাম এসে
দেখি কেউ আসে নাই
তারপর ইকটু ওয়েট
করলাম.এর ভিতরে সবাই
এসে গেছে
রাইচা:কি আজ আগে
বাগে এসে বসে আছিস
ফারিয়া:কালকের
ঔষাধে মনে হয় ধরছে
তারকে:কামরুল এখান
থেকে কিতে করে
যাবি?
আমি: আমি গাড়ি ভাড়া
করেছি.সোজা নানু
বাড়ি
রায়হান:তারপড় বাংলো
বাড়িতে যাবি কখন
আমি:রাতে
রায়হান:কি রাতে
তারেক:কেন রাতে
গেলে কি হইবো
রাইচা:রাতে গেলেই
ভালো হবে
ফারিয়া:হুম
আমি:দেরি হচ্ছে এখন
চল
ওকে চল {সবাই}
………..চলবে………..