বড় কর্তা – জিনিয়া দত্ত

0
5

গুরু গম্ভীর চেহারা,
গলার আওয়াজটা বেশ ভারি,
এক হুঙ্কারে কাঁপত
ওদের গোটা বাড়ি।

রাশভারি ছিল লোকটার
মনটা ছিল উদার,
সকলের জন্য ভাবত
উপকার করত সবার।

মাছ ধরার নেশা ছিল,
সবজিও ফলাত,
আলু, বেগুন শিম, আম
কত কিছুই না হত।

ছুটির দিনে আড্ডা সেরে,
ভাত ঘুম ফাঁকি দিয়ে
মাছ ধরতে চলল বড় কর্তা
হাতে বড়শি নিয়ে।

আশায় থাকতাম আমরা
কখন বেড়াতে আসবে?
আসলে পরে সবাই মিলে
একসাথে গল্প হবে।

দূরে থেকেও একটা
প্রবল টান ছিল,
রক্তের টান একেই বলে
সেটা ভরপুর ছিল।

মাইনে তখন বেশি ছিল না
পরিবার চালাতে হত,
তবুও বাপ-ভায়েদের জন্য
সব সময় চিন্তা করত।

এমন একটা মানুষ
সহজে পাওয়া যায় না,
সংসার আলো করে ছিল,
তার তুলনা হয় না।

দিনে দিনে বয়স বাড়ায়,
শরীরে থাবা বসাল ব্যাধি,
ব্যাধির জন্যই চলে গেল
রয়ে গেল সবই।

তিনি আজ নেই,
স্মৃতিগুলো আছে মনের কোণে,
আজীবন থাকবে
মোদের স্মরণে।