Home / কবিতা / ব্যথিত আঁধার/ মাহামুদুল হাসান

ব্যথিত আঁধার/ মাহামুদুল হাসান

দীর্ঘ চোখ আছে যার শুধু সে কি দ্যাখে

থৈ থৈ পিপাসার জল,ঘন অন্ধকার

কুয়াশার আবডালে যৌনতার ঘর?

দু একটা অন্ধ,বোকা মানুষ এখনো

বেঁচে আছে বেঁচে থাকে জীবনের কাছে

প্রত্যহ দু বেলা যারা ঘৈউ ঘৈউ করে

সভা সেমিনারে বলে নিদারুন আশা

সন্ধি রাত্রি এলে পরে খুঁজে রাখে চোখ

বীভৎস হায়েনার নোখের অক্ষর

কত ফুল ঝরে গেল কত আর বাকি?

অধিকারের শ্লোগানে মুখোরিত ছবি

এখন এসব আর কে হিসাবে রাখে !

যারা ঝরে যেতে চায় অনন্ত ফাগুনে

তারা শুধু পোড়া ছাই দগ্ধ পিপাসায়

এমন পৃথিবী এক কেউ দ্যাখে স্বপ্নে ?

যেখানে ফুলের কোন দু:খ নেই,নেই

বর্নিল চোখের ভাষা,ধ্বংসের দহন

আহত কষ্টের রঙ শুধুই ফোয়ারা

সবুজের রিক্ত বুকে মাটিগন্ধা হাতে

ফলে যে ফসলী ঘ্রাণ তার নাম প্রেম

এই ভালোবাসা কাকে আর ক্ষত করে ?

হৃদয়ের গহিনে জ্বলে সুফলা প্রত্যয়

প্রত্যহ দু বেলা যারা ঘৈউ ঘৈউ করে

তাদের কুকুর বলি আমি আর একা

কুকুর ও লজ্জা পায় অভিন্ন স্বভাবে।

About মাহামুদুল হাসান

মাহামুদুল হাসান
কবি মাহামুদুল হাসন ১০ জুলাই গোপালগন্জে জন্ম গ্রহন করেন ।১৯৯৮ সাল থেকে নিয়মিত ভাবে লেখা লেখি করে যাচ্ছেন। ২০১৪ সালে ভাষাচিত্র প্রকাশনী থেকে প্রথম কাব্য গ্রন্থ " লবণ ও লাবণ্যের দেহ" প্রকাশিত হয়েছে । দ্বিতীয় কাব্য গ্রন্থ " গুগলের নদি -ভূগোলের কাব্য " অপেক্ষায় আছে । কবিতার পাশা পাশি ছোট গল্প, উপন্যাস লেখার শখ আছে।

মন্তব্য করুন