বিরহী কবির ব্যথা

বিরহী কবির ব্যথা
লক্ষ্মণ ভাণ্ডারী

লেখনী আমার স্তব্ধ আজিকে
কবিতায় কথা বলে,
কবির হৃদয় সিক্ত আজিকে
বেদনার অশ্রুজলে।

জোছনাহারা আঁধার যামিনী
জোনাকীর কান্নায়,
দেখি না চাঁদ রাতের আকাশে
মিটিমিটি তারা চায়।

তন্দ্রা জড়ানো বিনিদ্র রজনী
অসহ্য ব্যথায় জাগে,
বিরহী কবির বিদীর্ণ হৃদয়ে
দারুণ আঘাত লাগে।

নির্জন রাত্রি বিরহী কবির
ঘুম নাহি আসে চোখে,
রাত্রি আঁধার পথের বাঁকে
কুকুরের দল ভোকে।

নদীর বাঁকে শৃগালের দল
মেতে ওঠে চিত্কারে,
বাদুড়ের দল বাঁশ বাগানে
পাখা মেলে অন্ধকারে।

রাত্রি নিঝুম ঘন তমসায়
কবি হেথা একা জাগে,
পূর্বাকাশে হেরি অরুণ রবি
মেঘে মেঘে রং লাগে।