ফুলের পাঁপড়ি

0
61

পৃথিবীর শত শত বাগানে শত কোটি ফুল ফোটে আছে। আর এ ফুল গুলো বিভিন্ন উপায়ে বিভিন্ন কাজে লাগে। যেমন:কাউকে স্বাগত জানাতে, প্রেমিক প্রেমিকার জন্যে, বিভিন্ন দেব-দবীর পুজায়। অর্থাৎ যেকোনো ভাবেই কাজে লাগে।

তদ্রুপ আমিও একটি ফুল। আর ফোটে আছি একটি বিশাল বড় বাগানে। প্রতিনিয়ত সকল লোকের আনাগোনা হয়। কেউ ফুল ছিঁড়ে, কেউ আবার ছবি তুলে।

আমি কিন্তু অসহায় হয়ে এখনও পড়ে আছি। কারণ কেউ আমাকে ছবি তোলা তো দূরের কথা ছুঁয়ে দেখে না। জন্মের পর থেকে কারো হাতের ছোঁয়া পাওয়ার আশায় বিধাতার কাছে প্রার্থনা করছি। তবুও মনের বাসনা পূর্ণ হচ্ছে না।কত আশা করি যে কেউ আমায় হাতে নিয়ে বুকে আগলে ধরুক। নয়তো দেব-দেবীর চরণে সমর্পণ করে দিক।

কিন্তু আমি ফুল হয়ে জন্ম নিয়েও বড় ভুল করলাম। কারণ আমার জীবন কারো হাতের ছোঁয়া না পেয়ে এভাবেই কেটে যাবে। অবশেষে ভ্রমর এসে আমার যত রূপ রস গন্ধ গ্রহণ করে আমাকে শুকিয়ে দিবে। আর আমি তো অকাতর। কিছুই বলার ভাষা নাই।এভাবেই কি ভ্রমরের হাতে অকালে পাপড়ি হয়ে শুকিয়ে যাব?

তবুও আমি সকলের জন্য মঙ্গল কামনা করে আমার জীবন উৎসর্গ করে দিলাম। যদিও কারো হাতের ছোঁয়া না পাই। তাহলে আমি তিলে তিলে শুকিয়ে অবশেষে পড়ে যাব মাটিতে। আর এখানেই হবে আমার জীবনের সমাপ্তি।

সমাপ্ত