নজরুলের প্রতি – বিভুব্রত

নজরুল বিনে আমি বিদ্রোহী শ্যামাগীতি কেমনে লিখতাম
বাংলায় না জন্মালে নজরুল কোন উপায়ে শিখতাম
আমার গানে গুরুচণ্ডালী কথায় আধুনিকতার ছাপ
নেই হারমুনি গিটার ধরেছি, নজরুল আমার গানের বাপ।

ছেলেবেলায় বাবার গানে সঙ্গত তেরেকেটে তাক
শ্যামা মায়ের কোলে চড়ে- এর বড়ই কঠিন যে সোম ফাঁক
বি ফ্ল্যাটে গেয়ে দেখো তুমি গঙ্গা সিন্ধু নর্মদা
সেভেন্থ কর্ডে কাবেরী নদী পার হয়েছি যে সর্বদা।

নয় পরিহিত বিদেশী বেশ, মাথার উপরে ছান্দিক কেশ
শ্যামলবর্ণ উচ্চনয়ন বাঁশরী বাজায় মুসলমান
জন্ম আমার ব্রাহ্মণ কূল, অথচ ধর্ম মানে নজরুল
ভোরবেলা দেখে গেয়ে গেছি কত মুসলমানি শ্যামার গান।

কারাগারে আজ বন্দি রয়েছি ভারত নামক এই বৃত্তে
কবি তুমি কারাবাসী হয়েছিলে এই ভারতের নিমিত্তে
আজ দিকে দিকে ধর্মের ধ্বজা উদ্ধৃতি দেয় জয় শ্রীরাম
নেই তুমি কবি নেই আমি কবি নেই-ই এ দেশের সর্বনাম।

আজ দিকে দিকে কেটে ফেলে যেন রোগগ্রস্ত গাছপালা
হাসপাতালের অষুধ ঝেঁপেও পুঁজি তুলে নি এই বেলা
টাকা জমবে সেই নিতম্বে কাঠি করা যে আমার কাম
ফিরে এসে আজ কর প্রতিবাদ পিতা মোর নজরুল ইসলাম।।