উজান নদী

0
69

মাগো তুমি কেমন আছো,আছো যে কত দূরে?
আজকে ভীষণ পড়ছে মনে ,ভাষাই নয়ন জলে!
পাইনা খুঁজে কোথাও আমি,এমন হাসি মুখ ,
ওই মুখেই লুকিয়ে ছিল,আমার যতই সুখ !
স্নানে ভেজা আঁচলে মোছা আগলে রাখা হাত
ফুঁ দিয়ে মা সরিয়ে দিতো,আটকে থাকা ভাত!
মায়ের চাঁদ,চাঁদের টিপ কপাল জুড়ে আলো,
আজকে ভীষণ পড়ছে মনে ফুরায় রাতের কালো !
মায়ের আদর,স্নেহের চাদর মায়ের কোলে ঘুম
তারার দেশে মায়ের উঁকি নুপুরের ঝুম ঝুম !
পরজন্মে জন্ম নেবো মা,মা-গো তোমারি কোলে,
মা মা বলে জড়িয়ে তোমায়,সকল দুঃখ যাবো ভুলে।।

“”””মা
আমি আছি তারা হয়ে,পড়বে যখন মনে ,
দূর আকাশে দেখবি তখন,থাকবো আমি চেয়ে !
আমি কেমনে থাকবো ভালো, সোনার টুকরো ছেড়ে ?
তোর হাসিতে,হাসতাম আমি ,বুকটাই যেত ভরে !
পার হয়েছি সাত সমুদ্র,আছি অনেক দূরে !
বুকটা আমার কেঁপে ওঠে, আকুল কান্নার সুরে !
দেব তোকে চাঁদের আলো স্নেহের আঁচল ভরে ,
ভরাবো বুক তোর হাসিতে সাত জনম ধরে !!