মহাদেশ – শ্রীজাত

0
14

ভালবাসা বড় বিপদের মতো সবুজ।
হাতে নিলে মুঠো, ছাড়লে ফঙ্গবেনে।
আমরা জানি না কে কোথায় থাকে। তবু
দুর্যোগ ঠিকই গরিবের ঘর চেনে।

সে তো বোঝে, এরা ছোট হয়ে আছে এত,
আরেকটুখানি পিষে দিয়ে গেলে, শেষ।
মানচিত্রে তো শহরেরা বিখ্যাত।
কে জানে, কোথায় গরিবের মহাদেশ…

জল থেকে হাত উঠে আসে, করো ত্রাণ!
মেঘ ভেদ ক’রে হেলিকপ্টার যায়…
আমার প্রশ্নে আজও সলিলের গান –
ঝড়ের কাছে কে ঠিকানা রাখতে চায়?

হাওয়া খুঁজে নেয়, কোন ঘরে নেই চাল।
জল বুঝে যায়, নড়বড়ে কার ভিটে।
উনুনের আঁচ বোঝে না আগামীকাল
ধরে যায় ভাত, গরিবের পৃথিবীতে।

আমাদের পাতে কম পড়বে না কিছু।
থালা যদি হয় পূর্ণ চাঁদের মতো
শাকান্ন ঠিকই জুটে যাবে মাথাপিছু।
এত অসহায় লাগবে না অন্তত।

এই ফারাকের টেথিস চাই না আর।
হে মহাসাগর, একবার দুলে উঠো –
ভাঙচুর যদি হয় হোক শেষবার
শুধু জুড়ে যাক, দূর মহাদেশদুটো।

বাংলা ভাষার আধুনিক যুগের কবিদের মধ্যে শ্রীজাত অন্যতম। সম্পূর্ণ নাম "শ্রীজাত বন্দ্যোপাধ্যায়"। জন্ম ২১ ডিসেম্বর, ১৯৭৫। জন্মস্থান কলকাতা। শ্রীজাত আনন্দ পুরস্কারে (২০০৪) ভূষিত হয়েছেন তাঁর উড়ন্ত সব জোকার কবিতার বইয়ের জন্য। তাকে বিংশ শতাব্দীর অন্যতম বাঙালি নোবেল মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে গন্য করা হয়। তিনি বর্তমানে ফেসবুকেও সক্রিয় আছেন। এই সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটের মাধ্যমে তিনি বিভিন্ন সাম্প্রতিক ঘটনাবলীর সম্পর্কে নিজের অভিমত ব্যক্ত করেছেন এবং ফেসবুকেও তিনি প্রবল জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন।

দয়া করে মন্তব্য করুন

দয়া করে মন্তব্য করুন
দয়া করে আপনার নাম লিখুন