Skip to content

জনমদুঃখিনীর প্রতি – সুদেব ভট্টাচার্য

একদিন যদি আমাকে সবাই ভুলে যায়,
কারোর অ্যালবামের পাতায় আমার জায়গা না হয়
কলেজের ফেয়ারওয়েলে নিমন্ত্রনও যদি না জোটে
তবু জানি তুমি আছ। ছিলে। থাকবে।

সবাই যখন ছেড়ে চলে যাবে একদিন আমায়
তখন আমি বন্ধুহীনতায় ভুগে ভুগে কাঁটা হয়ে যাব
তোমার হলুদ মাখা শাড়ি থেকে অক্সিজেন ঠিক নেব
আর তুমি ভুগবে আমিহীনতায়।

আমি যত দূরেই যাই চলে ,আমি বুঝব না কিছুই
তবু, তুমি তোমার নাড়ির টান তো পাবে টের
সে যন্ত্রনাতে ছটফটিয়ে মরলেও তুমি বুঝতে দেবে না।
জানি, অভিশাপও বেরবে না ঠোঁট থেকে।

কত বেলা লুকিয়ে লুকিয়ে ছিল মেঘের আড়ালে
না সেজে-সেজেই তোমার সাদা হয়ে এল চুল
তোমায় এখন কব্জা করেছে ব্যাধি, প্রতারনা করে দৃষ্টি
তবু তোমার হিসেবে – আমার বয়স বাড়েনি এতটুকু।

কত জ্বরের জলপট্টির হিসেব কি আমার মনে আছে?
পরীক্ষার ঘুমহীন রাতের পর মুখে খাবার যোগানো সকাল
নিজের সুখের বদলে আমার নতুন জামা,
বা প্রতিদিন জোরজবস্তি আর একটু বেশি ভাত ।

এসবের হিসেব লিখে রাখিনি আমি, রাখতেও চাইনি ।
প্রথম শেখা ধ্বনির প্রতি অন্যায়ই শুধু মানায়
কিছু পাওনি, তবু দিয়েই গেছ – অলিখিত দাসত্বে
চোখ থেকে যত মুক্ত ঝরালে তার মালাও গেথে রাখিনি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Ads Blocker Image Powered by Code Help Pro

অ্যাড ব্লক পাওয়া গেছে!!

সত্যি বলছি, আমরাও বিজ্ঞাপন পছন্দ করিনা! কিন্তু বিজ্ঞাপন এই ওয়েবসাইটকে বিনামূল্যে চালাতে সাহায্য করে! 

দয়া করে অ্যাড ব্লকার বন্ধ করে পুনরায় লোড করুন।