আমাদের  ​​ ​​ ​​​​ জমির মাটি ঘরের বেটি,​​ সমান রে ভাই।

কে রাবণ  ​​ ​​ ​​​​ করে হরণ দেখব রে তাই॥

আমাদের  ​​ ​​ ​​​​ ঘরের বেটির কেশের মুঠি ধরে নে যায় সাগরপারে,

দিয়ে হাত  ​​ ​​ ​​​​ মাথায় শুধু ঘরে বসে রইব না রে।

যে লাঙল  ​​ ​​ ​​​​ ফলা দিয়ে শস্য ফলাই মরুর বুকে,

আছে সে  ​​ ​​ ​​​​ লাঙল আজও রুখব তাতেই রাজার সেপাই॥

​​ পাঁচনির  ​​ ​​ ​​​​ আশীর্বাদে মানুষ করি ঠেঙিয়ে বলদ,

সে পাঁচন  ​​ ​​ ​​​​ আছে আজও ভাঙব তাতেই ওদের গলদ।

যে-জলে  ​​ ​​ ​​​​ ভাসছি মোরা চল সে-জলে ওদের ভাসাই॥

 ​​​​ পাথুরে  ​​ ​​ ​​​​ পাহাড় কেটে নিঙাড়ি নীরস ধরা,

আনি রে  ​​ ​​ ​​​​ ঝরনাধারা এ নিখিল শীতল করা।

আজি সে  ​​ ​​ ​​​​ গাঁইতি শাবল কোথায় গেল,​​ হাতে কি নাই॥

​​ খেতেছে  ​​ ​​ ​​​​ ফসল নিতুই ডিঙিয়ে বেড়ার কাঁটা,

​​ এবারের  ​​ ​​ ​​​​ পুজোয় নতুন বলি দে সে-সব পাঁঠা।

 ​​​​ দেখিবি  ​​ ​​ ​​​​ আসবে ফিরে শক্তিময়ী আবার হেথাই॥

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।