একটা রক্তকরবী ফুটবে বলে – প্রদীপ বালা

0
268

একটা রক্ত করবী ফুটবে বলে
                                দাঁড়িয়ে আছি
ঋতু আসে ঋতু যায়
ভীড় ঠেলা ট্রাম ব্যস্ত মানুষ
সব পেরিয়ে দাঁড়িয়ে আছি
ঝুপ করে ফের সন্ধ্যা নামে
ক্লান্ত পাখির ডানার ঝাঁপটা
শুনতে শুনতে দাঁড়িয়ে আছি
এই শহরে আবারও ফের
বসন্তেরই অপেক্ষাতে
                                দাঁড়িয়ে আছি

একটা রক্তকরবী ফুটবে বলে
ভয় ধরল রাষ্ট্রযন্ত্রের
লাঠি হাতে তেড়ে এল সাঁজোয়া ভবন
টিয়ার গ্যাসের শেল ফাটল
জলকামানে ভিজে গেল মানুষ যত
রাজপথে সব দাঁড়িয়ে ছিল
উজাড় হল গ্রাম থেকে গ্রাম
উজাড় হল বস্তি কত
দেশদ্রোহীর তকমা পেল
মানুষ যারা আওয়াজ দিল

একটা রক্তকরবী ফুটবে বলে
একলা কৃষক ধানের আলে বসে থাকে
ফলিডলের শিশি হাতে
ধান থেকে সুখ উবে গেছে বহু আগে
‘মন কী বাতে, মন কী বাতে’

একটা রক্তকরবী ফুটবে বলে
পিলপিলিয়ে মানুষ এল
শহর থেকে গ্রামের থেকে
বস্তি থেকে গঞ্জ থেকে
রাস্তা মোড়ে জটলা হল
দেশপ্রেমীরা দৌড়ে এল
গেরুয়া বসন দৌড়ে এল
ধরল কলার ধরল টুঁটি
স্বদেশ প্রেমের আঁটুনিতে
প্রেমের দশা ‘ফস্কা গেরো’

একটা
রক্তকরবী ফুটবে বলে
দাঁড়িয়ে আছি
হা বসন্তে বৃষ্টি ছাঁটে
রক্ত চোখে সূয্যি পাটে

একটা
রক্তকরবী ফুটবে বলে
অনেক কথা আটকে আছে
অনেক হাতে হাত রাখেনি
প্রেমিক যুবক
ব্যর্থ হাওয়ায় উড়ে গেছে
নিজের মতো একলা বিকেল
হারিয়ে গেছে অন্ধকারে

একটা
রক্তকরবী ফুটবে বলে
একলা মেয়ের পথ আটকালো
মুখোশ পরা রাজনীতিকে
বুকের আঁচল উড়িয়ে দিল
নষ্ট হাওয়ার স্বদেশপ্রেমে
চতুর্দিকে চতুর্দিকে

রক্তকরবী ফুটবে যেদিন
পুড়বে শহর ছুটবে মানুষ
রক্তচোখে
মিছিল থেকে মিছিল হবে
রাজপথে ফের জুড়বে মানুষ
ধ্বংস হবে মিথ্যে ফানুস,
মানুষ এসে পথ দেখাবে
মুখ লুকোবে রাষ্ট্রযন্ত্র
রক্ত চোখের বাড়বে বহর

তাই,
রক্তকরবী ফুটবে বলে
দাঁড়িয়ে আছি
ফুটপাতে ফুটপাতে আবার
বিপ্লবের গান শুনবো বলে
দাঁড়িয়ে আছি
পচাগলা লাশের শহর
আগুন চোখে পোড়াব বলে
দাঁড়িয়ে আছি
২৮ দিনের শিশুর কাছে
সহিষ্ণুতা শিখব বলে
দাঁড়িয়ে আছি

একটা
রক্তকরবী ফুটবে বলে
দাঁড়িয়ে আছি…
                                পঁচিশ বছর…

দয়া করে মন্তব্য করুন

দয়া করে মন্তব্য করুন
দয়া করে আপনার নাম লিখুন